সোমবার, ১৭ Jun ২০২৪, ০২:২১ পূর্বাহ্ন

শিরোনামঃ

বিজ্ঞাপন

গজারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ২জন উপস্থিত আর বাকীরা উদাও,নেই ব্যবস্থা

গজারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ২জন উপস্থিত আর বাকীরা উদাও,নেই ব্যবস্থা

মোহাম্মদ জাকির লস্কর, মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি:

মুন্সীগঞ্জ গজারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ১৯জন কর্মরত ডাক্তারের মধ্যে দুইজন উপস্থিত! উপজেলা স্বাস্থ্য অফিসারসহ বাকী ১৭জন ডাক্তার গেল কোথায়? একটি উপজেলা হাসপাতালে দিনভর রোগী আসে। বিভিন্ন ধরনের রোগী নিয়ে এই হাসপাতালে ভর্তি হয়। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের যত দুর্ঘটনা, সকল দুর্ঘটনার রোগীও এই হাসপাতালেই ভর্তি করা হয়ে থাকে। এমন একটি গুরুত্বপূর্ণ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ১৯ কর্মরত ডাক্তারের মধ্যে ১৭জনই অনুপস্থিত বিষয়টি ভাবিয়ে তুলেছে গজারিয়াবাসীকে। ঘটনাটি ঘটেছে রোববার ১৮ সেপ্টেম্বর।

গজারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ২জন ডাক্তার দিয়ে চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয়েছে। যা হাস্যকরও বটে। রোববার (১৮ সেপ্টেম্বর) বেলা ১টা ২৫ মিনিটের সময় সরোজমিন গজারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স গেলে দেখা যায় সেখানে ১৯জন কর্মরত ডাক্তারের মধ্যে ২জন উপস্থিত রয়েছেন। বাকী কর্মরত ডাক্তারগণ কোথায় গেলেন কেউ জানেন না। উপস্থিত দুইজন ডাক্তার হলেন, ডা: খন্দকার আরশাদ কবির ও আবাসিক মেডিকেল অফিসার আশরাফুল ইসলাম। এ সময় উপজেলা স্বাস্থ্য প:প: অফিসার মোবাশশিরা বিনতে আলমও উপস্থিত ছিলেন না। উপস্থিত দুইজন ডাক্তারকে এ বিষয়ে প্রশ্ন করলে তারা কোন সদুত্তর দিতে পারেননি।

দুইদিন পূর্বে এই গুরুত্বপূর্ণ হাসপাতালটিতে অপারেশন বিভাগ চালু হয়েছে। যেখানে প্রথম একটি কন্যা শিশু ডেলিভারী করানো হয়েছে। যা মিডিয়া পাড়া ও স্থানীয়দের মাঝে খুবই গুরুত্ব বহন করে। কিন্তু সেই হাসপাতালটিতে যদি কর্মরত ১৯ জন ডাক্তারের মধ্যে ২জন আসেন তাহলে চিকিৎসা ব্যবস্থা আসলে কোথায় গিয়ে দাঁড়ালো।

এ বিষয়ে গজারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য প:প: অফিসার মোবাশশির বিনতে আলম জানান, ১৯ জন ডাক্তারের মধ্যে ২জন ডাক্তার উপস্থিত কেন? এমন প্রশ্ন শুনেই তিনি ক্ষেপে যান। বক্তব্য নেয়ার সময় (তখন ৫.৫০টা) তিনি প্রশ্ন করেন এখন বাজে কয়টা। এখন ডাক্তার দুইজনই থাকবেন। ১টার সময় যে দুইজন ছিল সেই কথা তিনি শুনতেই নারাজ।

এ বিষয়ে ভোক্তা অধিকারের একজন সক্রিয় সদস্য নওশেদ জানান, আমি বেলা ১২.৪০টার সময় হাসপাতালে এসেছি তখন দেখি কোন ডাক্তার নেই। একটি হাসপাতালে যদি ডাক্তার না থাকে তবে আমরা সেবা পাবো কিভাবে? অপর একজন রোগী মোস্তফা আলম জানান, হাসপাতালে ১টার সময় এসেছি কোন ডাক্তার পাইনি।

এ বিষয়ে মুন্সীগঞ্জ জেলা সিভিল সার্জন ডা: মো: মঞ্জুরুল আলম জানান, এই দিনে দুইজন ডাক্তার উপস্থিত বিষয়ে তিনি বলেন হয়তবা ডাক্তারগণ নাইট ডিউটি পালন করেছেন। ডাক্তারদের অনুপস্থিত থাকার কথা না। বিষয়টি আমি দেখতেছি।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




সম্পাদক ও প্রকাশক

No description available.

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ মোঃ ওমর ফারুক চৌধুরী

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদকঃ ইঞ্জিঃ সোহরাব হোসেন শাহেদ

সহঃ ভারপ্রাপ্ত সম্পাদকঃ রিফাত আহম্মেদ

নির্বাহী সম্পাদকঃ মোল্লা মোহাম্মদ হাসান

বার্তা সম্পাদকঃ মোঃ লস্কর আলী

ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ মোঃ সগির আহম্মেদ

অফিসঃ৪৮/বি, পশ্চিম যাত্রাবাড়ী,ঢাকা-১২০৪।

ওয়েব সাইট-www.bortomanjonojibon.com

নিউজ মেইলঃ newsbortomanjonojibon@gmail.com

যোগাযোগ- ০২-৭৫৪২৩১২

এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Bangla Webs