শুক্রবার, ১৪ Jun ২০২৪, ০৭:০৯ অপরাহ্ন

শিরোনামঃ

বিজ্ঞাপন

কোভিট-১৯ রোগ ছড়ানোর আশঙ্কায় বাংলাদেশের সকল ফেরিঘাটে জনস্রোত ঠেকাতে রবিবার থেকে বিজিবি মোতায়েন-প্রশাসন (বিজিবি)

কোভিট-১৯ রোগ ছড়ানোর আশঙ্কায় বাংলাদেশের সকল ফেরিঘাটে জনস্রোত ঠেকাতে রবিবার থেকে বিজিবি মোতায়েন-প্রশাসন (বিজিবি)

 

বিশেষ প্রতিবেদন

ঢাকার অধিকাংশ কর্মজীবী মানুষ বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলা থেকে আগত।সরকারী বা বে-সরকারী প্রতিষ্ঠানে কর্মরত লোকেরা,যারা বছরের মাত্র মুষ্টিময় কয়েকদিন ছুটি পেয়ে থাকেন,যা তাদের পরিবারের সাথে কাটিয়ে থাকেন।যার মধ্যে শতকরা ৯০ ভাগ মানুষ গ্রামমুখী।

আর বর্তমান করোনা লকডাউনের কারনে গত দুই/তিন দিন যাবত দক্ষিন ও পূর্ব দক্ষিনে গ্রামাঞ্চলে বসবাসরত কর্মজীবী মানুষের ভিড় লক্ষ্য করা যায় মুন্সীগঞ্জের মাওয়া এবং মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ফেরিঘাটে।

যাদের অনেকেই দেশে বসবাসরত পরিবারের সকল সদস্যদের সাথে আসন্ন ঈদ উদযাপনের জন্য গ্রামের বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছিলেন।এহেন পরিস্থিতিতে গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ্য হতে দেশের সকল মানুষের ভালো থাকার বিষয়টি চিন্তা করে উল্লেখিত সিদ্বান্ত গ্রহন করাটা একান্ত প্রয়োজন মনে করেন।

আর সেই জন্যই সকল কর্মজীবী মানুষ থেকে শুরু করে আপামর সকল জনগনের সেবায় ও কোভিট-১৯ হতে সুরক্ষার কথা চিন্তা করে সরকার সকলের চলাচলকে স্বভাবিক করার লক্ষ্যে  বিজিবি মোতায়েন করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিজিবি প্রশাসনিক কর্মকর্তারা।

মুন্সিগঞ্জের জেলা প্রশাসক মনিরুজ্জামান তালুকদার  এক প্রেস কনফারেন্সের মাধ্যমে জানান যে- মাওয়া ফেরিঘাট এবং ধলেশ্বরী ব্রিজে দুই প্লাটুন বিজিবি এরই মধ্যে মোতায়েন করা হয়েছে।পাশাপাশি প্রয়োজন মোতাবেক সকল ধরনের সুরক্ষা ব্যবস্থা জনগনের জন্য তারা করে যাবেন বলে মতামত ব্যক্ত করেন।

তাছাড়া জেলা প্রশাসক আরো জানান যে – সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আন্ত:জেলা গণপরিবহন এবং ফেরি সার্ভিস বন্ধ রয়েছে।সকল জনগনের খেয়াল খুশি মতো চলাচলে নিরুৎসাহিত করার জন্য রাস্তায় এবং ফেরিঘাটে বিজিবি চেকপোস্ট মোতায়েন থাকবে বলে আশা ব্যক্ত করেন।

তাছাড়া প্রশাসনিক কর্মকর্তারা (বিজিবি) বলছেন যে, মাওয়া এবং পাটুরিয়ার ফেরিঘাটে শুক্র এবং শনিবার হাজার-হাজার মানুষ ভিড় করলে এক পর্যায়ে ফেরি দিয়ে লোকজনকে নদী পার করে দিতে বাধ্য হয়েছে ফেরিঘাটের সংশ্লিষ্টরা।আর এই সকল অসচেতনতা রোধ কল্পে রবিবার থেকে এই পরিস্থিতি যাতে আর তৈরি না হয় সেজন্য বিজিবি কড়া অবস্থানে থাকবে বলে প্রশাসনিল কর্মকর্তারা(বিজিবি) বলছেন।

মানিকগঞ্জের জেলা প্রশাসক এস এম ফেরদৌস বর্তমানে প্রতিনিয়ত ঘটে থাকা  করোনা ভাইরাস সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি ঠেকাতে সরকার যে পদক্ষেপ নিয়েছে সেটি যাতে ঠিকমতো বাস্তবায়ন হয় সেজন্য বিজিবি মোতায়েন করার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

মানিকগঞ্জের জেলা প্রশাসক জানান, জেলার তিনটি স্থানে বিজিবি চেকপোস্ট থাকবে। যাতে কেউ সে জেলার ভেতরে কিংবা বাইরে যেতে না পারে।

মানিকগঞ্জের জেলা প্রশাসক এস এম ফেরদৌস  তিনি আরো জানান যে, দেশের সকল জনগনের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে তাদের এই কঠোর ব্যবস্থা গ্রহন।

সর্বোপরি প্রশাসনিক কর্মকর্তারা (বিজিবি) বলছেন যে সরকারি নির্দেশ মোতাবেক মৃতদেহ বহনকারী গাড়ি, রোগী এবং দৈনিক খাদ্য পণ্যবাহী  ট্রাক/কাভার্ট ভ্যান বা পিকআপ পারাপারের জন্য ফেরি চলাচল  শিথিল থাকবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




সম্পাদক ও প্রকাশক

No description available.

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ মোঃ ওমর ফারুক চৌধুরী

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদকঃ ইঞ্জিঃ সোহরাব হোসেন শাহেদ

সহঃ ভারপ্রাপ্ত সম্পাদকঃ রিফাত আহম্মেদ

নির্বাহী সম্পাদকঃ মোল্লা মোহাম্মদ হাসান

বার্তা সম্পাদকঃ মোঃ লস্কর আলী

ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ মোঃ সগির আহম্মেদ

অফিসঃ৪৮/বি, পশ্চিম যাত্রাবাড়ী,ঢাকা-১২০৪।

ওয়েব সাইট-www.bortomanjonojibon.com

নিউজ মেইলঃ newsbortomanjonojibon@gmail.com

যোগাযোগ- ০২-৭৫৪২৩১২

এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Bangla Webs